Latest:

Today: 10 Nov 2019 - 03:28:03 am

নীলফামারীতে দুই শিশু ধর্ষনে ধর্ষক গ্রেফতার

Published on Wednesday, September 4, 2019 at 3:51 pm 0 Views

simantotimes24
বিশেষ প্রতিনিধি : নীলফামারী সদরে পৃথক ঘটনায় দুই শিশু ধর্ষনের শিকারের হয়েছে। সাত বছরের শিশুকে ধর্ষনের দায়ে আটক হয়েছে আব্দুল রাজ্জাক (১৪) ও ১২ বছরের ধর্ম নাতনীকে ধর্ষনের দায়ে নানা জাবেদ আলী (৬০)।
বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) সকালে আদালতের মাধ্যমে আব্দুল রাজ্জাককে যশোরের কিশোর সংশোধনাগারে ও জাবেদ আলীকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। নীলফামারী থানার ওসি মোমিনুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
জানা যায়, সদরের পঞ্চপুকুর ইউনিয়নের জুম্মাপাড়া গ্রামের আলী হোসেন মন্টু ও তার স্ত্রী উত্তরা ইপিজেডে শ্রমিকের কাজ করায় তারা দুইজনে সেখানে বাসা ভাড়া করে থাকে। তাদের একমাত্র ৭ বছরের মেয়ে গ্রামে তার দাদীর সঙ্গে থাকতো।
মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে পেয়ারা দেয়ার লোভ দেখিয়ে ফাঁকাস্থানে নিয়ে গিয়ে ওই গ্রামের রাশেদুল ইসলামের ছেলে আব্দুল রাজ্জাক মেয়েটিকে ধর্ষন করার পর রক্তাত্ব অবস্থায় মেয়েটিকে তার দাদির কাছে দিয়ে চলে যায়। মেয়েটি তার দাদিকে ঘটনাটি জানালে দাদী তার নাতনীকে নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশকে খবর দেয়।
পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়ে আব্দুল রাজ্জাককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় ধর্ষনের শিকার শিশুটির দাদী অমেনা বেওয়া বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে। ইউপি চেয়ারম্যান হবিবর রহমানসহ এলাকাবাসী অভিযোগ করে জানায় আব্দুল রাজ্জাকের বয়স ১৪ বছর হলেও সে এই বয়সে বখাটে হয়েছে। এর আগেও সে এমন ঘটনা ঘটিয়েছিল। সে সময় এলাকাবাসী তাকে ক্ষমা করে দিয়েছিল।
তার বাবা রাশেদুল ইসলাম জানায় তার ছেলে হঠ্াৎ করে খারাপ হয়ে যায়। সে কারো কোন কথা শোনেনা, স্কুলে যায়না। তার ছেলেকে নিয়ে তিনি বড় চিন্তায় ছিলেন। অপর দিকে, একই দিন রাতে সদরের কুন্দপুকুর ইউনিয়নের সরকার পাড়া গ্রামে ১২ বছরের ধর্ম নাতনীকে ধর্ষন করে নানা জাবেদ আলী।
জানা যায়, এই গ্রামের কৃষক মজিবুল ইসলাম ও তার স্ত্রীর সঙ্গে পরিচয় ঘটে দিনাজপুর জেলা শহরের ঘাসিপাড়া মহল্লার মৃত শুকুর আলীর ছেলে জাবেদ আলীর। তিনি মজিবুল ইসলামের স্ত্রীকে ধর্ম মেয়ে বানায়। এই সুবাদে জাবেদ আলী ঘটনার দুইদিন আগে ধর্ম মেয়ে, জামাইয়ের বাড়িতে বেড়াতে আসে।
গতকাল মঙ্গলবার রাতে সকলে ঘুমিয়ে গেলে জাবেদ আলী ধর্ম মেয়ে ও জামাইয়ের ১২ বছরের মেয়েকে জোড়পূর্বক ধর্ষন করতে থাকলে মেয়েটি চিৎকারে তিনি হাতে নাতে আটক হয়।
খবর পেয়ে, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। এই মেয়েটিকেও সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা মজিবুল ইসলাম বাদী হয়ে নীলফামারী থানায় মামলা দায়ের করে।
এদিকে পৃথক দুটি ঘটনায় ডাক্তারী পরীক্ষায় ধর্ষনের আলামত পাওয়া গেছে বলে সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্ম্মন জানান।
নীলফামারী থানার ওসি মোমিনুল ইসলাম ঘটনা দুইটির বিষয়ে জানান, মামলা হয়েছে। দুই ঘটনার ধর্ষককে গ্রেফতার করা হয়। তাদের আদালতে প্রেরন করা হলে আদালত আব্দুল রাজ্জাককে যশোরের কিশোর সংশোধনাগারে ও জাবেদ আলীকে জেলা কারাগারে পাঠিয়ে দেয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *